মমতার নাম না করে চিটফান্ড দুর্নীতির অভিযোগ শুভেন্দুর

বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে সরব হয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। দিদির নাম মুখে না আনলেও কথাবার্তায় বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি কাকে নিয়ে কথা বলছেন।

তবে মঙ্গলবারের সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে সরাসরি দুর্নীতির অভিযোগ আনলেন শুভেন্দু অধিকারী। মুখ্যমন্ত্রীর আঁকা ছবি চিটফান্ড মালিকদের বিক্রির প্রসঙ্গ তুলে, মমতা নিজেও যে দুর্নীতির ঊর্ধ্বে নন সেটাই প্রমাণ করেছেন শুভেন্দু।

এদিন শুভেন্দু অধিকারী বলেন,”আমি তোলাবাজ ভাইপো বলেছি, তাই ভাইপোর রাগ হয়েছে। সেদিন ডায়মন্ড হারবারে আমার উদ্দেশ্যে নারদা সারদা বলেছে। বলেছে আমিও তোলাবাজ”।

তিনি আরো বলেন,”সেতো তদন্ত হবেই। তাতেই পরিষ্কার হবে কে দোষী আর কে নির্দোষ। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টে পেশ করা হলফনামায় কি বলা হয়েছে? মুখ্যমন্ত্রী আঁকা ছবি চিটফান্ড সংস্থাগুলিকে কে কিনতে বলেছিল? সারদার তারা টিভিতে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের টাকা কে ঢেলেছিল? সব বেরোবে এবার”।

এদিনের সভায় কয়লা, বালি এবং গরু পাচার নিয়ে মুখ খোলেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন,”দেখবেন রাস্তা দিয়ে সারি সারি ট্রাক যাচ্ছে। সেই ট্রাক আটকালে একটা কাগজে দেখাবে। ওটা ভাতিজা গেট পাস।

পিসি ভাজলির সরকার বাংলায় আর ফিরছে না।” এদিন টিটাগর থেকে খড়দহ পর্যন্ত মিছিলের আয়োজন করেছিলেন অর্জুন সিং। তাতেই শামিল হয়েছিলেন বাবুল সুপ্রিয় শুভ্রাংশু রায় সহ অনেকেই। রাজনৈতিক মঞ্চ থেকে বারবার তৃণমূলকে কটাক্ষ করার জবাব এবার তৃণমূল কি দেয় সেটাই দেখার।

Reply