Sunday , September 26 2021
Breaking News

“তৃণমূল ফের ক্ষমতায় আসবে, সেদিন বাড়িতে বসে থেকো”, শুভেন্দুকে কটাক্ষ মদন মিত্রের

উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহে রবিবার মহা মিছিল এবং সভার আয়োজন করলেন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। সপ্তাহের প্রথম দিকে উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুরে সভা করেছিলেন সদ্য বিজেপিতে যোগদান করা শুভেন্দু অধিকারী।

তাই মদন মিত্র এবার খড়দহের সভা মঞ্চ থেকে শুভেন্দু অধিকারীর নাম করে হুঙ্কার দিলেন। বললেন,”চমকে-ধমকে লাভ নেই। ফের তৃণমূল ক্ষমতায় আসবে। সেদিন শুভেন্দু, তুমি বাড়িতে বসে থেকো”।

মদন মিত্র মনে করেন, শুভেন্দু অধিকারীর তৃণমূল ত্যাগের পর দলের কোনো ক্ষতি হয়নি। এবিন মদন মিত্রকে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী হিসেবেই লক্ষ্য করা গিয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলে থাকার পর বিজেপিতে যোগদান করে শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূলের পক্ষ থেকে “বেইমান” তকমা পেয়েছেন।

খড়দহের জনসভা থেকে মদন মিত্রের মন্তব্য,”ল’ড়াই করতে গিয়ে যদি লা”শ বের হয়, তাহলে একটাই অনুরোধ। লাশের উপর লিখে দেবেন – এটা বেইমানের লা’শ নয়, এটা ইমানদারের লা’শ।”

এদিন শুধু শুভেন্দু অধিকারী নয়, অমিত শাহ এবং নরেন্দ্র মোদির দিকেও চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। তৃণমূলের সঙ্গে মদন মিত্রের সম্পর্ক অটুট তা প্রমাণ করলেন তিনি।

মদন মিত্র বলেন,”কেউ যদি বলে থাকেন যে আমাকে দল বের করে দিয়েছে, ভুল বলছেন। বের করে দেয়নি। বরং যা দিয়েছে, তা আমি কোনওদিন ভুলতে পারব না।” এদিন খড়দহের বিটি রোডে মদন মিত্রর নেতৃত্বে মহামিছিলের আয়োজন করা হয়।

খড়দহে বিটি রোডের পাশে অস্থায়ী মঞ্চে উপস্থিত মদন মিত্রের সভায় তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। দাপুটে নেতাকে কাছে পেয়ে সকলেই যেন চাঙ্গা হয়ে গিয়েছেন।

জায়গা না পেয়ে অনেকে আবার বহুতল ছাদের উপর থেকে মদন মিত্রের ভাষণ শোনেন। চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়ও এদিনের মঞ্চে ভাষণ দেন। ম’দন মিত্রের মন্তব্য আনুসারে এদিন সভায় স্লোগান ওঠে,”শুভেন্দু অধিকারী দূর হঠো”।

About L..

Check Also

মদন মিত্রের জীবনীচিত্রে গান গাইবেন নচিকেতা।

Madan Mitra: মদনের বায়োপিকে গান নচিকেতার, নায়ক নিশ্চিত হলেও নায়িকা ঠিক করা যাচ্ছে না, জানালেন মদন

তিনি ‘কালারফুল’। অর্থাৎ ‘রংদার’। স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্রকে নিয়ে এমনই বলেছিলেন। রাজনীতির ময়দান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *