স্কুলের হোস্টেলে ২২৯ শিক্ষার্থী করোনা আ’ ক্রা’ ন্ত…

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

মহারাষ্ট্রের ওয়াশিম জেলার দেগাঁওয়ের একটি আদিবাসী আবাসিক স্কুলে এ ঘটনা ঘটেছে। স্কুলটির নাম ভাভনা পাবলিক স্কুল। ছাত্র ও শিক্ষক করোনায় আ’ ক্রা ‘ন্ত হওয়ার পরই ওই স্কুলকে করোনা সং’ ক্র’ ম’ ণ এলাকা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।

গত ২৭ জানুয়ারি স্কুলটি পুনরায় চালু করার ঘোষণা দেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। এরপর ১৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বিভিন্ন জেলা থেকে শিক্ষার্থীরা ওই স্কুলের হোস্টেলে ফিরে এসেছিল।

হোস্টেল খোলার পর কয়েকজন শিক্ষার্থীর মধ্যে করোনা লক্ষণ পাওয়ায় স্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের করোনা পরীক্ষা করে এবং প্রাথমিক ভাবে ৩০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। পরে স্কুলের ক্লাস ৫ থেকে শুরু করে ক্লাস ৯ পর্যন্ত মোট ৩২৭ শিক্ষার্থীকে করোনা পরীক্ষা করা হয়। যার মধ্যে ২২৯ জনের করোনা শ’ না’ ক্ত হয়।

যে সকল শিক্ষার্থীরা করোনা আ’ ক্রা’ ন্ত হয়েছেন তাদের বিদ্যালয়েই করোনার চিকিৎসা করা হচ্ছে। আর অন্যদের আ’ ক্রা’ ন্ত’ দের থেকে আলাদা করে রাখা হয়েছে বলে স্কুল কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে।

যারা করোনা আ’ ক্রা;’ ন্ত হয়েছেন তাদের মধ্যে ১৫১ জন শিক্ষার্থী মহারাষ্ট্রের অমরাবতীর, ৫৫ জন শিক্ষার্থী যবত্মাল ও বাকি শিক্ষার্থীরা হলেন ওয়াশিম, হিঙ্গোলি, বুলধন ও অকোলা জেলার।

স্কুলের সব শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও স্কুলের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর করোনা টেস্ট করা হয়েছিল। এতজন কীভাবে করোনায় আ’ ক্রা’ ন্ত হলেন বা করোনা সবার মধ্যে ছড়িয়ে পড়ল, তা খতিয়ে দেখছেন রাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা।

Reply