চীনের তৈরি করোনা ভাইরাস জৈব অ’স্ত্র, ২০১৫ সাল থেকে পরিকল্পনা , তথ্য ফাঁস

গত বছরের শুরু থেকে করোনাভাইরাস ভারতসহ অন্যান্য দেশে থাবা বসিয়েছে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বহু মানুষের। এই ভাইরাসের কারণে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ভেঙে পড়েছে। অসহায় হয়ে পড়েছে অনেক মানুষ। এই ভাইরাস চীন থেকে ছড়িয়েছে বলে আগেই জানা গিয়েছে। এবার চিনা বিজ্ঞানী ও স্বাস্থ্য আধিকারিক দের নথি ফাঁস করে উইকেন্ড অস্ট্রেলিয়া দাবি করেছে, ২০১৫ সালে সার্স করোনা ভাইরাসকে নতুন যুগের জৈব অস্ত্র হিসেবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

সূত্রের খবর অনুযায়ী, তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ হলে জৈব অস্ত্র ব্যবহৃত হবে, এমনই দাবি করা হয়েছে দ্য আননেচারাল অরিজিন অফ সার্স অ্যান্ড নিউ স্পিসিস অব ম্যান-মেড ভাইরাসেস অ্যাজ জেনেটিক বায়োওয়েপন শীর্ষক নথিতে। ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠেছে চীন ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল খোঁজার কেন উৎসাহ দেখাচ্ছেনা। বাজার থেকে ভাইরাস ছড়ালে চীনের সহযোগিতা করা উচিত ছিল। তবে তারা অনাগ্রহী।

সূত্র মারফত খবর, news.com.au – কে অস্ট্রেলিয়ান স্ট্র্যাটেজিক পলিসি ইনস্টিটিউটের এক্সিকিউটিব ডিরেটর পিটার জেনিংস্ জানিয়েছেন, অন্যদিকে অস্বীকার করা যায় না। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে করোনা ভাইরাসের নানা ধরনের স্ট্রেইনকে কিভাবে ব্যবহার করা যায় তা নিয়ে চীনা বিজ্ঞানীরা আলোচনা করেছেন। ফলে সেনার কাজে ব্যবহার করতে গিয়ে এই মরণ ভাইরাস বাইরে চলে আসার সম্ভাবনাও ক্রমশ দৃট হচ্ছে। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ বরাট পটারের মদ ফাঁস হওয়া নথি ভুয়ো নয়।

Reply