আরব-ইহুদি যুদ্ধে নয়া ফ্রন্ট, এবার লেবাননে বোমাবর্ষণ ইজরায়েলের

ইজরায়েল-প্যালেস্তাইনের (Israel) মধ্যে সংঘর্ষে উত্তাল মধ্যপ্রাচ্য। এর মাঝেই আরও এক ভয়ংকর যুদ্ধের আতঙ্ক আরব দুনিয়ায়। এবার লেবাননের সঙ্গে অশান্তি বেঁধেছে ইজরায়েলের। লেবানন-ইজরায়েল সীমান্তে একে অপরকে লক্ষ্য করে চলছে গোলাবর্ষণ। যদিও এখনও এই অশান্তিতে কোনও হতাহতের খবর মেলেনি। তবে এই অশান্তিকে কেন্দ্র করে ফের বড়সড় সংঘর্ষের আশঙ্কা করছে ওয়াকিবহাল মহল।

ইজরায়েল সেনা সূত্রে খবর, লেবানন থেকে ৬টি রকেট ছোঁড়া হয়েছিল। তবে একটিও ইজরায়েল-লেবানন সীমান্ত অতিক্রম করতে পারেনি। এদিকে লেবাননের অভিযোগ, ইজরায়েল লেবাননকে লক্ষ্য করে ক্রমাগত গোলাবর্ষণ করে যাচ্ছে। ২২টি বোমা ফেলেছে তারা। আর এই গোলাবর্ষণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে আতঙ্কে ভুগছেন ওই এলাকার সাধারণ মানুষ। তাদের আশঙ্কা প্যালেস্তাইনের মতো এবার লেবাননের সঙ্গেও এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়বে নেতানিয়াহুর দেশ। মনে করা হচ্ছে, লেবানন ক্রমাগত তৃতীয় যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত হচ্ছে।

এদিকে গাজায় কিছুটা হলেও ঝাঁজ কমেছে ইজরায়েলি আক্রমণের। গত ২৪ ঘণ্টায় ইজরায়েলের রকেট হানায় গাজা থেকে কোনও হতাহতের খবর মেলেনি। তবে প্রায় সাড়ে চারশোটি বাড়ি ভেঙেছে রকেট হামলায়।পালটা ইজরায়েল লক্ষ্য করেও রকেট ছুঁড়েছে হামাস। তবে আয়রন ডোম ভাঙলেও সে দেশের কোনও ক্ষতি করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, জঙ্গি গোষ্ঠী হামাসের সঙ্গে ইজরায়েলের (Israel) লড়াই কিছুতেই থামছে না। আন্তর্জাতিক মঞ্চের উদ্বেগ বাড়িয়ে গাজায় লাগাতার বিমান হানা চালিয়ে যাচ্ছে ‘ইজরায়েল ডিফেন্স ফোর্সেস’। পালটা তেল আভিভ, আশকেলন-সহ ইজরায়েলের একাধিক শহরে রকেট হামলা চালাচ্ছে হামাস ও ইসলামিক জেহাদ। সব মিলিয়ে এপর্যন্ত গাজায় প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ২০০ জন। নিহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন ইজরায়েলি নাগরিক। এহেন পরিস্থিতিতে এবার জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক জেহাদের শীর্ষনেতাকে খতম করেছে ইজরায়েল।

Reply