Tuesday , September 21 2021
Breaking News

ঐতিহাসিক বৈঠকে পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণে সম্মতি বাইডেন-পুতিনের, রাষ্ট্রদূত ফেরানোর সিদ্ধান্ত

জেনেভা: শেষ হয়েছে বহুপ্রতিক্ষিত দুই শীর্ষ রাষ্ট্রনেতা মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন (Joe Biden) ও রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের (Vladimir Putin) ঐতিহাসিক বৈঠক। বৈঠকে দু-দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনরায় স্থাপনের জন্য রাষ্ট্রদূতদের ফেরত পাঠানোর বিষয়ে সহমত হয়েছেন বাইডেন-পুতিন। পাশাপাশি পরমাণু অস্ত্র নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে দ্বিপক্ষীয় কৌশলগত আলোচনা শুরু করতে নিজেদের সম্মতির কথা জনিয়েছেন।

এদিন মার্কিন রাষ্ট্রপতি রাশিয়াকে সতর্কও করে দিয়েছেন যে, যদি রাশিয়া (Russia) পরবর্তীসময়ে সাইবার আক্রমণের মতো ঘটনা ঘটায়, তাহলে আমেরিকাও তার পাল্টা জবাব দেবে। জানা গিয়েছে, দুই শীর্ষ রাষ্ট্রনায়কদের মধ্যে প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে এই বৈঠক চলেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট যৌথ বিবৃতিতে জানিয়েছেন, “পরমাণু যুদ্ধে কেউ জয়ী হতে পারবে না কাজেই যেকোনও মূল্যে এ ধরনের যুদ্ধ এড়িয়ে চলা উচিত।” এদিকে পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাতের পর এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেছেন, রাশিয়া ও আমেরিকার মধ্যে সম্পর্ক ও সহযোগিতার উন্নয়ন শুধুমাত্র দু’টি দেশের স্বার্থ রক্ষা করবে না, গোটা বিশ্বের কল্যাণ বয়ে আনবে। এদিন তিনি ইরানের পরমাণু চুক্তি নিয়েও রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানান। উল্লেখ্য, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র একতরফাভাবে বেরিয়ে যাওয়ার কারণে অচলাবস্থা তৈরী হয়েছিল।

হোয়াইট হাউজের (White House) এক আধিকারিক জানিয়েছেন, বুধবার দু’‌দেশের এই শীর্ষ রাষ্ট্রনায়কের বৈঠকে সময় কোনও দ্বিধা-‌দ্বন্দ্ব ছিল না। তাই প্রত্যাশার চেয়ে অনেক আগে এই বৈঠক শেষ হয়েছে।

জেনেভা (Geneva) শহরে এক শতাব্দী প্রাচীন ভিলায় এ দিন বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। বৈঠকের আগের দিনই জেনেভায় পৌঁছেছিলেন বাইডেন। যদিও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট বৈঠকের ঠিক আগেই এসেছিলেন। এ দিন এই ঐতিহাসিক রুদ্ধশ্বাস বৈঠকে প্রবেশের আগে সাংবাদিকদের সামনে পাশাপাশি বসেন বাইডেন-পুতিন। সঙ্গে ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিদেশসচিব অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন এবং রুশ বিদেশমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ। ক্যামেরাবন্দি করতে রীতিমতো হুড়োহুড়ি পড়ে যায় আমেরিকা এবং রাশিয়ার সাংবাদিক আর চিত্রগ্রাহকদের মধ্যে। তা নিয়ে যদিও সমালোচনা করতে ছাড়েনি রুশ সংবাদমাধ্যম। তাদের দাবি, বৈঠক বানচাল করতে ওই কাণ্ড ঘটিয়েছেন আমেরিকার সাংবাদিকেরা।

About A..

Check Also

সেই ভয়ঙ্কর সৌরঝড়। -ফাইল ছবি।

আসছে ভয়ঙ্কর সৌরঝড়, ভেঙে পড়তে পারে বিশ্বের ইন্টারনেট যোগাযোগ, অশনিসঙ্কেত গবেষণার

ভয়ঙ্কর সৌরঝড় (‘সোলার স্টর্ম’) আসছে। যার ফলে ভেঙে পড়তে পারে গোটা বিশ্বের যাবতীয় ইন্টারনেট যোগাযোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *