Tuesday , September 21 2021
Breaking News
কোভিড থেকে মুক্তি পেতে এখনও অনেক দূর যেতে হবে ভারতকে।

২৪ ঘণ্টায় ৭৩% কম টিকাকরণের দিনে আমেরিকাকে টপকে যাওয়ার গর্বিত টুইট বিজেপি-মোদীর

করোনার বিরুদ্ধে টিকাকরণই একমাত্র অস্ত্র। বার বার তা বলে আসছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও বার বার টিকা নেওয়ার উপর গুরুত্ব দিয়েছেন। তা সত্ত্বেও, দেশে দৈনিক টিকাকরণে ফের ধস নামল। ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ৭৩ শতাংশ কম হল টিকাকরণ।

রবিবার সকালের পরিসংখ্যানে আগের ২৪ ঘণ্টায় যেখানে ৬৪ লক্ষ ২৫ হাজার ৮৯৩ জন টিকা পেয়েছিলেন বলে জানানো হয়, সোমবারের দেওয়া হিসাবে তা নেমে এসেছে ১৭ লক্ষ ২১ হাজার ২৬৮-তে।

সোমবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক যে পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে, তাতেই দৈনিক টিকাকরণে এই শিথিলতা চোখে পড়েছে। অথচ পাঁচ দিন আগে, গত মঙ্গলবারের পরিসংখ্যানে দৈনিক টিকাকরণ সর্বোচ্চ ৮৬ লক্ষ ১৬ হাজার ৩৭৩-এ গিয়ে ঠেকে। তার পর একবার ৫০ লক্ষের কোটায় নেমে এলেও, গত কয়েক দিন ৬০ লক্ষের কোটাতেই ছিল দৈনিক টিকাকরণ। রবিবার সারা দিনে তা-ই একেবারে ১৭ লক্ষে নেমে এল।

সব মিলিয়ে দেশে এখনও পর্যন্ত ৩২ কোটি ৩৬ লক্ষ ৬৩ হাজার ২৯৭ জন নাগরিক টিকা পেয়েছেন বলে জানিয়েছে কেন্দ্র। তাতে গোটা বিশ্বে টিকাকরণে ভারতই সবচেয়ে এগিয়ে বলে দাবি তুলতে শুরু করেছেন বিজেপি নেতৃত্ব। তাঁদের দাবি, গত বছর ১৪ ডিসেম্বর থেকে টিকাকরণ শুরু করে আমেরিকা এখনও পর্যন্ত দেশের ৩২ কোটি ৩৩ লক্ষ ২৭ হাজার ৩২৮ জন নাগরিককে টিকা দিতে পেরেছে।

টুইট করে স্বাস্থ্য মন্ত্রকও জানিয়েছে, ‘কোভিডের টিকাকরণে আর একটা মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলল ভারত। মোট টিকা দেওয়ায় আমেরিকাকে ছাপিয়ে গেল।’ টুইটারে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া, ‘ভারতের টিকাকরণ প্রকল্প আরও গতি পাচ্ছে। যাঁরা এই প্রকল্পকে চালনা করছেন, তাঁদের সকলকে অভিনন্দন। সার্বিক ও বিনামূল্যে টিকাকরণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ আমরা।’

৮ ডিসেম্বর থেকে মোটে ৭ কোটি ৬৭ লক্ষ ৭৪ হাজার ৯৯০ জনকে টিকা দিয়েছে ব্রিটেন। জার্মানিতেও ২৭ ডিসেম্বর থেকে এখনও পর্যন্ত ৭ কোটি ১৪ লক্ষ ৩৭ হাজার ৫১৪ জনের টিকাকরণ হয়েছে। ফ্রান্স এখনও ৬ কোটি মানুষকেও টিকা দিতে পারেনি। ইটালি তার থেকেও পিছিয়ে।

কিন্তু তাদের চেয়ে পরে টিকাকরণ শুরু করেও, এ বছর ১৬ জানুয়ারি থেকে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি টিকা দিয়েছে ভারত।

বিজেপি-র মিডিয়া সেলের প্রধান অমিত মালবীয় টুইটারে লেখেন, ‘দেরিতে শুরু করেও, কোভিডের টিকাকরণে আমেরিকাকে ছাপিয়ে গেল ভারত। দারুণ কাজ করেছে ভারত।’ বিজেপি-র জাতীয় সহ-সভাপতি হর্ষ সাঙ্ঘভি লেখেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যে বীজ পুঁতেছিলেন, তার সঙ্গে চিকিৎসক এবং বিজ্ঞানীদের প্রয়াসেই এই ফলন। টিকাকরণে আমেরিকাকে ছাপিয়ে গেল ভারত। বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি টিকা ভারতই দিয়েছে।’

কিন্তু বিজেপি নেতারা যে কথা উহ্য রাখছেন, তা হল, আমেরিকার জনসংখ্যা মোটে ৩২ কোটি ৮২ লক্ষ।

সেই অনুযায়ী দেশের প্রায় ১০০ শতাংশ নাগরিকই টিকা পেয়েছেন। এর মধ্যে দু’টি টিকাই পেয়ে গিয়েছেন ৪৬ শতাংশের বেশি মানুষ। ব্রিটেনের জনসংখ্যা মোট প্রায় ৬ কোটি ৬৬ লক্ষ। সেখানে দু’টি করে টিকা দেওয়ার কাজ জোর কদমে চলছে। সেই তুলনায় ভারতের জনসংখ্যা প্রায় ১৪০ কোটি। মোট জনসংখ্যার নিরিখে দেশে এখনও পর্যন্ত ২২ শতাংশ মানুষ টিকা পেয়েছেন। এর মধ্যে ১৮ শতাংশ মানুষ শুধুমাত্র একটি টিকা পেয়েছেন। দু’টি টিকাই পেয়ে গিয়েছেন মাত্র ৩.৫ শতাংশ মানুষ।

তথ্যসূত্রঃআনন্দবাজার পত্রিকা

About A..

Check Also

ফাইল চিত্র।

Dilip Ghosh on Babul Supriyo: মন্ত্রী হতে এসেছিলেন যাঁরা, তাঁরা কোথায়? দিলীপের বাবুল-কটাক্ষের লক্ষ্য দিল্লি?

বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে চলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে কার্যত দলের উপরতলার দিকে আঙুল তুললেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *