Tuesday , September 21 2021
Breaking News

কলকাতায় যত্রতত্র মূর্তি বসানো যাবে না, দেবাঞ্জন কাণ্ডের পর কড়া পদক্ষেপ কলকাতা পুরসভার

ভুয়ো আইএএস দেবাঞ্জন দেবের ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে একাধিক কড়া প্রশাসনিক পদক্ষেপ নিয়েছে প্রশাসন। সেই পর্যায়েই এ বার কলকাতার রাস্তায় যত্রতত্র মূর্তি বসানো নিয়ে কড়া পদক্ষেপ করতে চলেছে কলকাতা পুরসভা। পুরসভার এক আধিকারিকের কথায়, ‘‘শহরে যেখানে সেখানে মূর্তি বসানো নিয়ে কলকাতা পুরসভার আইন রয়েছে। কিন্তু দেবাঞ্জনের ঘটনার পর দেখা গিয়েছে সেই আইন না মেনেই যত্রতত্র মূর্তি বসিয়ে নামের ফলক বসানো হয়েছে। এ ক্ষেত্রে আমরা পুরসভার আইন যাতে আরও কড়া ভাবে বলবৎ করা যায়, সে ব্যাপারে উদ্যোগী হতে শুরু করেছি।’’

ভুয়ো ভ্যাকসিন দেওয়ার অভিযোগে দেবাঞ্জনকে গ্রেফতার করার পরেই মধ্য কলকাতার তালতলায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটি মূর্তি বসানোর ঘটনায় তাঁর ভূমিকা প্রকাশ্যে আসে। ভোটের আগে ২৬ মার্চ তালতলায় নিজের উদ্যোগে সেই মূর্তি বসান দেবাঞ্জন। মূর্তির নীচে নিজের নামের সঙ্গে কলকাতা পৌর প্রশাসক তথা তৎকালীন পুর নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, প্রাক্তন ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ, উত্তর কলকাতার সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, তৎকালীন মন্ত্রী তাপস রায় ও চৌরঙ্গী বিধায়ক নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম দিয়েছিলেন ওই অভিযুক্ত।

দেবাঞ্জনের সঙ্গে শাসক দলের এই সমস্ত প্রতিনিধিদের সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে বলে অভিযোগ তুলে নেটমাধ্যমে সরব হয় বিরোধী দল বিজেপি। কিন্তু শাসক দলের ওই প্রতিনিধিরা প্রকাশ্যে বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেন, ২৬ মার্চ এমন কোনও অনুষ্ঠানে তাঁরা যাননি।

অভিযুক্ত ব্যক্তির সঙ্গে তাঁদের কোনও যোগাযোগ নেই। শাসক দলের নেতারা এমন তাঁদের এমন অবস্থানের কথা জানালেও, বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো আক্রমণ থেকে পিছু হঠেনি।

কলকাতা পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছিল, তালতলা এলাকায় ওই মূর্তিটি বসানোর ক্ষেত্রে পুরসভার কোনও অনুমতি নেওয়া হয়নি। পরে পুরসভার পক্ষে থেকে সেই মূর্তি ভাঙ্গা না হলেও দ্রুত শাসক দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেবাঞ্জনের নাম থাকা ওই ফলকটি ভেঙে ফেলা হয়েছে। তবে এর পর আর এমন কোনও ঘটনার কথা জানা গেলে পুরসভা কড়া পদক্ষেপ নেবে বলেই ইঙ্গিত মিলেছে।

সেই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে কলকাতা পুরসভা মহানগরীর যত্রতত্র মূর্তি বসানোর বিরুদ্ধে কড়া নির্দেশনামা জারি করতে চলেছে বলেই খবর। রাসবিহারীর বিধায়ক তথা কলকাতা পুর প্রশাসক বোর্ডের অন্যতম সদস্য দেবাশিস কুমার বলেছেন, ‘‘কলকাতায় যে কোনও ধরনের মূর্তি বসাতে গেলে কলকাতা পুরসভার অনুমতি নিতেই হয়। সেই নিয়ম অনুযায়ী, কিন্তু কেউ যদি নিজের উদ্যোগে বেআইনি ভাবে কোনও মূর্তি বসাতে চায় তা হলে পুরসভা তা ভেঙে দেবে।’’ এ বার এমন ঘটনা যাতে না ঘটে সে বিষয়ে কড়া নজর রাখতে চলছে কলকাতা পুরসভা।

তথ্যসূত্রঃআনন্দবাজার পত্রিকা

About A..

Check Also

ফাইল চিত্র।

Dilip Ghosh on Babul Supriyo: মন্ত্রী হতে এসেছিলেন যাঁরা, তাঁরা কোথায়? দিলীপের বাবুল-কটাক্ষের লক্ষ্য দিল্লি?

বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে চলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে কার্যত দলের উপরতলার দিকে আঙুল তুললেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *