Tuesday , September 21 2021
Breaking News
মদন মিত্র ও দিলীপ ঘোষ।

তৃণমূলে হিরো একজনই, বিধানসভায় মদন মিত্রের সঙ্গে দেখা হতেই বললেন দিলীপ ঘোষ

বিধানসভায় কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্রর সঙ্গে দেখা হতে সহাস্য মন্তব্য করলেন বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের। জমকালো পাঞ্জাবি পরিহিত মদনকে দেখে তাঁর মন্তব্য, ‘‘তৃণমূলে একজনই হিরো।’’

মঙ্গলবার বিধানসভায় শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের জন্মদিন উপলক্ষে মাল্যদান করতেআসেন মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ। বিধানসভায় শ্যামাপ্রসাদের ছবিতে মাল্যদানের পর লবিতেই বসেদলীয় বিধায়কের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। এমন সময় কাছ দিয়েই যাচ্ছিলেন মদন। তাঁকে আসতে দেখেই হাত নেড়ে দাঁড় করান দিলীপ।প্রাক্তন পরিবহণমন্ত্রী মদনের পরনে ছিল জমকালো সোনালি কাজ করা কালো পাঞ্জাবি। এমন পোশাক দেখে কৌতূহলী দিলীপ প্রশ্ন করেন, ‘‘এরকম পাঞ্জাবি ক’পিস আছে আপনার? খাসা পাঞ্জাবি পরেছেন একখানা।’’ম়ৃদু হেসে জবাব দেন মদন। তিনি বলেন,‘‘একপিসই।’’

হাসতে হাসতেই মদন আরও বলেন, ‘‘দুপুরে একটু বেরিয়েই ভিজে জবজবে হয়ে গেলাম বলে পোশাকটা পাল্টে এলাম। এরকম পাঞ্জাবি এই একটাই আছে আমার।’’পাল্টা হাসিতে বিজেপি সভাপতি বলেন, ‘‘আপনার দলে তো হিরো বলতেও তো একজনই আছে, সেটা মদন মিত্র।’’ দিলীপের কথা শুনে হাসতে থাকেন মদন।তারপর অবশ্য বেশিক্ষণ দাঁড়াননি মদন। হেঁটে চলে যান অধিবেশন কক্ষে।

পরে তাঁকে সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরা জানতে চান, দিলীপবাবুর সঙ্গে কী কথা হল আপনার?জবাবে মদন বলেন‘‘ওই পাঞ্জাবি নিয়ে কথা বলছিলেন। বললেন, আপনিই আপনার দলের একমাত্র হিরো। আসলে আমার সঙ্গে সকলেরই ভাল সম্পর্ক তো।’’ প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার প্রথমার্ধে শার্ট প্যান্ট পরে এসেছিলেন মদন। কিন্তু ঘামে ভিজে যাওয়ায়দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর আগে জমকালো পাঞ্জাবি পরেন তিনি। পোশাক পাল্টানোর পরই দিলীপের নজরে পড়েন তিনি।

২০১৬-১৯ পর্যন্ত খড়্গপুর সদরের বিধায়ক ছিলেন দিলীপ। সেই সময় বিধানসভায় এলে বাম-কংগ্রেস-তৃণমূল, সব বিধায়কের মধ্যেই লজেন্সবিলি করতেন তিনি। বাম-কংগ্রেসের কোনও প্রতিনিধি এখন আর বিধানসভায় নেই। তাই মঙ্গলবার বিজেপি বিধায়কদের বিশেষ ধরনের চকোলেট দেন তিনি।

তথ্যসূত্রঃআনন্দবাজার পত্রিকা

About A..

Check Also

ফাইল চিত্র।

Dilip Ghosh on Babul Supriyo: মন্ত্রী হতে এসেছিলেন যাঁরা, তাঁরা কোথায়? দিলীপের বাবুল-কটাক্ষের লক্ষ্য দিল্লি?

বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে চলে যাওয়াকে কেন্দ্র করে কার্যত দলের উপরতলার দিকে আঙুল তুললেন …